মিস্টার এন্ড মিস ফ্রেশ লুকের সিজন-০৪ এ ২য় রানার্স আপ বিজয়ী হলেন সকাল

শোবিজ ডেস্ক :গত ৩০ শে মার্চ অনুষ্ঠিত হয় মিস্টার এন্ড মিস সিজন 4 গ্র্যান্ড ফিনালে, জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিকেল 5 টা 30 মিনিটে শিল্পকলা একাডেমীর সংগীত ভবনে অনুষ্ঠানটি শুরু হয় । এ প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো নারী এবং পুরুষ প্রতিযোগীদের পাশাপাশি এখানে অংশগ্রহণ করেন নন বাইনারি মডেল সকাল । সবগুলো সেগমেন্টে তার আত্মবিশ্বাসি উপস্থাপনা ছিল চোখে পড়ার মতো । প্রশ্নোত্তর পর্বে আলিফ চৌধুরী তাকে প্রশ্ন করেন, ক্রিকেট খেলা নিয়ে প্রশ্ন করলে বুদ্ধিমত্তার সাথে সেই প্রশ্নটি এড়িয়ে যান সকাল এরপর বিচারক তাকে প্রশ্ন করেন নিজেকে সবার সাথে এক মনে হয় কিনা ‌? প্রশ্নের জবাবে সকাল বলেন ” আমার সব সময়ই নিজেকে সবার সাথে এক মনে হয়, কারণ আমার মনে হয় একজন মানুষকে নারী এবং পুরুষ হয়ে ওঠার আগে মানুষ হয়ে ওঠা জরুরী ” এরপর বিচারক তাকে আবারও প্রশ্ন করেন , ” এখানে সকল প্রতিযোগিতার মধ্য থেকে যদি আপনি কি বললে হয় আপনি কেন সেরা মনে করেন নিজেকে তাহলে কি বলবেন, কেন নিজেকে সেরা মনে করেন ” উত্তরে সকাল বলেন ” প্রত্যেকটি মানুষ তার নিজের জায়গা থেকে সেরা, এখানে যারা আছেন আমার সহপাঠী তারা সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে সেরা। যদি আমি আমাকে সবার চেয়ে সেরা মনে করি তাহলে আমি বলব, আমি মেধাবী অধ্যাবসায়ী এবং পরিশ্রমী । আমার মধ্যে সেই আগ্রহ টা আছে যে আগ্রহ আমাকে এখানে নিয়ে এসেছে এবং এই আগ্রহ নিয়ে আমি একদিন বিশ্বজয় করব ইনশাআল্লাহ ।‌” প্রশ্নোত্তর পর্বে বিচারকমণ্ডলী দের সন্তুষ্ট করেন সকাল। সকালের বিশ্ব জয় করার কথা শুনে শম্পা রেজা খুবই খুশি হন এবং ঋতুপর্ণ ঘোষের কথা স্মরণ করে বলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ আমার খুব ভালো বন্ধু ছিলেন, ” ঋতুপর্ণের মত তুমিও বিশ্ব জয় করবে ” ।
শেষ মুহূর্তে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করার সময় এল, সেকেন্ড রানার্সআপ হলেন non-binary মডেল সকাল ।সেকেন্ড রানার্সআপ হলে তার অনুভূতি জানতে চাইলে তিনি বলেন ” প্রথমে আমি ধন্যবাদ জানাবো মিস্টার এন্ড মিসেস লোক সিজন ফোর কে, আমাকে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়ার জন্য। আমি সবসময় চেষ্টা করেছি আমার সর্বোচ্চ টা দেয়ার, সবগুলো রাউন্ডে ভালো করেছি, সবাই সব সময় আমাকে অনেক বেশি ভালোবেসেছেন এবং সাপোর্ট করেছেন ।‌ এ প্রতিযোগিতায় এসেছি আমি অনেক কিছু শিখতে পেরেছি। রিজভী ভাইয়া , রুবেল ভাইয়া, আরিয়ান ভাইয়া সবার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ । “আমাকে এ পর্যন্ত আসার জন্য যিনি সবচেয়ে বেশি উৎসাহ দিয়েছেন তিনি আমার প্রিয় মারিয়া কিসপট্টা ম্যাম । সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন আমার এই আত্মবিশ্বাস নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারি এবং সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করতে পারি ।গ্র্যান্ড ফিনালের বিচারের দ্বায়িত্বে ছিলে শম্পারেজা, বিপ্লব সাহা, চয়নিকা চৌধুরী, আসিফ খান, আলিফ চৌধুরী, বুলবুল টুম্পা, সান্জু জন,তানিয়া হোসেন।

সদ্য প্রকাশিত

মহুয়া মুনা’র নতুন মিউজিক ভিডিও ” ভেলুয়া” ইউটিউবে প্রকাশিত

রিফাত রাহুল খাঁন :তরুণ প্রজন্মের প্রতিভাবান শিল্পী মহুয়া মুনা। নিজের কোকিল কন্ঠী গায়কী দিয়ে শোবিজ অঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন...

“ফিরে এসো সুরঞ্জনা” নাটকের মাধ্যমে এবারই প্রথম অপূর্ব’র সঙ্গে জুঁটি বেধে কাজ করলেন হিমি

প্রথমবারের মতো অপূর্ব'র সঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করলেন হিমি শোবিজ ডেস্ক :ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জান্নাতুল সুমাইয়া হিমি। দীর্ঘদিন...

আজ সংগীতশিল্পী লুইপা’র জন্মদিন

বর্তমান প্রজন্মের প্রতিভাবান সংগীতশিল্পী জিনিয়া জাফরিন লুইপা৷ চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে বাদও পড়ে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু রুনা লায়লার গাওয়া ‘দেবদাস’...

দীর্ঘ ৯ মাস পর নতুন মৌলিক গান নিয়ে শিল্পী ও নির্মাতা নাহিন এহসান

সম্প্রতি দীর্ঘ ৯ মাস পর সংগীত শিল্পী ও নির্মাতা নাহিন এহসান ফিরছেন তাঁর নতুন মৌলিক গান '' প্রেমে পড়ার গল্প '' নিয়ে।...

সম্পর্কিত পোস্ট